ঠোঁটে চুমু খেতে অস্বীকার মৌনির তবে , জন্মদিনে বিকিনি পরে উদ্দাম নাচলেন বাঙালি কন্যা

kissing mouni roy

ঠোঁটে চুমু খেতে অস্বীকার মৌনির তবে জন্মদিনে বিকিনি পরে উদ্দাম নাচলেন বাঙালি কন্যা

kissing mouni roy

মলদ্বীপের সমুদ্রসৈকতে বান্ধবী মন্দিরা বেদির সঙ্গে জমিয়ে পার্টি করলেন মৌনি রায় । ভিডিও নেটদুনিয়ায় আসতেই তাহয়েগেলো ভাইরাল । মন্দিরা বেদিও নিজের ফিগার নিয়ে খুবই সচেতন । এখন তিনি বিবাহিত, সন্তানের মা ।

কিন্তু এই বয়সেও তাঁর পারফেক্ট বিকিনি ফিগার অনেককেই ঈর্ষাকাতর করে তোলে । সমুদ্রের ধারে মন্দিরা আর মৌনি বিকিনিতে নাচলেন , গাইলেন, হুল্লোড় করলেন । তবে বার্থ ডে গার্ল মৌনির একটাই অনুরোধ ঠোঁটে চুমু খাওয়া চলবে না । এই করোনার আবহে একটু সতর্কতা , এই আর কি । তাই দুই বান্ধবী চুম্বন পর্বটা গালেই সারলেন ।

বাঙালি হলেও অবশ্য তিনি দীর্ঘদিন ধরেই বলি-পাড়ার বাসিন্দা ৷ বলিউডেই এখন আসর জমিয়ে ফেলেছেন মৌনি রায় ৷ ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দা, সর্বত্রই পরিচিত মুখ মৌনি ৷ ইদানিং আবার পরিচালকমশাইয়ের বান্ধবীও তিনি ৷

কোচবিহারের মেয়ে তিনি মৌনির শুরুটা এই বাংলা থেকেই । সাংবাদিক হওয়ার স্বপ্ন নিযে গিয়েছিলেন দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ায় পড়তে , সেখান থেকেই ডাক এল বলিপাড়ায় । একতা কাপুরের হাত ধরে সিরিয়াল জগতে পা ।

তবে ফলে বাংলা নয়, আরবতীরর বাণিজ্যনগরীই এখন মৌনির পাকাপাকি ঠিকানা ৷ পোশাক নির্বাচনের ব্যাপারে মৌনি খুবই বোল্ড ৷ তার পাশাপাশি মৌনির ফিগার নিয়ে কোনও কথা হবে না ৷ সাধারণ বাঙালি মেয়েদের তুলনায় অনেকটাই লম্বা নায়িকা ৷

লকডাউনের সময় থেকেই মুম্বই ছাড়া তিনি । কখনও রয়েছেন দুবাইতে, এবং কখনও মলদ্বীপে। তার উপর আজ আবার নায়িকার জন্মদিন । তাই সেলিব্রেশনের মাত্রাটাও আজ একটু বেশি ।