প্রতিমা মিশ্র। সাংবাদিক। এবিপি নিউজ। আজ সারাদিন এই নামটাই তোলপাড় করে দিলো উত্তরপ্রদেশ এবং পুরো দেশকে

pratima mishra abp news

প্রতিমা মিশ্র। সাংবাদিক। এবিপি নিউজ।

আজ সারাদিন এই নামটাই তোলপাড় করে দিলো উত্তরপ্রদেশ এবং পুরো দেশকে। সকাল থেকে ধর্ষিতার বাড়ির বাইরে গিয়ে তাদের সাথে কথা বলার চেষ্টা, যা উনি গত তিনদিন ধরে করে আসছেন, আজকেও বাধা পান এবং তারপর কি হয় তা সারা দেশ দেখেছে!

সংবাদমাধ্যম দেশের চতুর্থ স্তম্ভ। এই জিনিসটা বহুদিন ধরেই ভুলতে বসেছি আমরা, থ্যাংকস টু সোল্ড মিডিয়া। কিন্তু আজ প্রতিমা প্রমাণ করে দিলেন, এই পোড়া দেশে এখনও রভিশ কুমারের পাশাপাশি দাঁড়িয়ে বিক্রি না হয়ে যাওয়া সাংবাদিক আছেন।

এমন না যে উত্তরপ্রদেশের এই ধর্ষণের ঘটনা উনি প্রথম কভার করছেন। এর আগেও দিল্লি নির্ভয়া কাণ্ডে উনি গ্রাউন্ড জিরো রিপোর্টিং করেছিলেন, সেখানে দুর্দান্ত রিপোর্টিং এর সুবাদে তাঁর পরিচয় পায় সারা দেশ। প্রতিমা রামনাথ গোয়েঙ্কা পুরস্কারও পান তাঁর এক্সিলেন্ট জার্নালিজম এর জন্য।

প্রতিমা আজ দেখিয়ে দিলেন, সংবাদমাধ্যম চাইলে এবং একজন সাংবাদিক চাইলে একাই একটা গোটা সরকার ও তার দ্বারা অন্যায়ভাবে পরিচালিত পুলিশবাহিনীকে নড়িয়ে দিতে পারে! যতবার ওনাকে যতরকম উপায়ে আটকাতে চেয়েছে পুলিশ, প্রতিমা গলা আরও শক্ত করে, পুলিশকে বারংবার প্রশ্ন করে, পাশের ধুতরো ফুল তুলে দিয়ে চেষ্টা করেছেন ধর্ষিতার বাড়ির লোকেদের কাছে পৌঁছতে, তাদের নিজেদের বক্তব্য রাখার সুযোগ দিতে।

সকাল নটা থেকে সারাদিন প্রতিমা বলে গেলেন। প্রখর সূর্য, দুশো পুলিশ, মহিলা পুলিশের টানাটানি, ধাক্কা ধাক্কি ও প্রেসার মাথায় নিয়ে ডিউটি পালন করে গেলেন। একটা সময় গলা ভেঙে গেলো তাঁর, কিন্তু আওয়াজ কমলো না। প্রতিমা ছুটলেন এদিক থেকে ওদিক, এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত। নালা নর্দমা, জমি, পুলিশের জিপ কিছুই বাদ গেলো না।

সাথে বলতে হয়, প্রতিমার ক্যামেরাম্যান মনোজ অধিকারীর কথা। প্রতিমার ভূমিকার থেকেও বড়ো ভূমিকা পালন করে ক্যামেরাম্যান। প্রতিমার উপর যে চাপ আসে, তার থেকে অনেক বেশি আসে পুরুষ ক্যামেরাম্যান এর উপর। পুরুষ পুলিশকর্মীদের ধাক্কা ধাক্কি, ক্যামেরা কেড়ে নেওয়া ইত্যাদি উপেক্ষা করে উনি কভার করে গেলেন গোটাটা।

এই দুজনের ব্যাপারে লিখলাম এই কারণেই, এই দুজনের ব্যাপারে আমাদের জানা উচিত। আমাদের চেনা উচিত, আমাদের উচিত এদের সাপোর্ট করা, অন্যদের বলা। আমরা যদি এইরকম সাহসী এবং নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার সম্মান না দি, তাহলে বাকিটুকু অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিকে পরিণত হবে। #ABPkoMatRoko এখন ট্রেন্ডিং, সরকারের টনক নড়েছে। সংবাদমাধ্যম এখানেই সফল।

প্রতিমাদের চিনুন। চেনান। কারণ, কিছু প্রতিমা পুজো না হলেও, তারা বদলে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন